কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ অক্টোবর ২০১৭

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী-২০১৭ উদযাপিত


প্রকাশন তারিখ : 2017-10-08

‘শিক্ষা গবেষণায় দেশের সেরা, খাদ্য পুষ্টি নিরাপত্তা দেবো মোরা’ শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য এর মধ্য দিয়ে গত ৭ অক্টোবর বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহের ৫৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী-২০১৭ উদযাপিত হয়। সকাল ১০.০০ ঘটিকায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার-এর মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী জনাব নুরুল ইসলাম নাহিদ উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। উদ্বোধন শেষে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বাকৃবি হেলিপ্যাড থেকে বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ উপলক্ষে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তন, বাকৃবি-তে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রফেসর ড. মোঃ জসীম উদ্দিন খান সম্মানিত প্রো-ভিসি, বাকৃবি-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার; সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, মাননীয় ধর্মমন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার; বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান এমপি ও মাননীয় সিন্ডিকেট সদস্য, বাকৃবি। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. শামসুল আলম মাননীয় সদস্য (সিনিয়র সচিব), পরিকল্পনা কমিশন ও সিন্ডিকেট সদস্য, বাকৃবি; প্রফেসর ড. মোঃ আলী আকবর, মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর, বাকৃবি; কৃষিবিদ মোঃ হামিদুর রহমান, সাবেক মহাপরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও নির্বাহী সভাপতি, বাকৃবি অ্যালামনাই এসোসিয়েশন; কৃষিবিদ বদিউজ্জামান বাদশা, নির্বাহী সম্পাদক, বাকৃবি অ্যালামনাই এসোসিয়েশন প্রমূখ।

 

আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জন ও সম্মুখ ভাবনা বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রফেসর ড. এ কে এম জাকির হোসেন; ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার মন্ডল বিশেষ আলোচক হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন ও গবেষণা কল্পে বক্তব্য রাখেন। ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আলী আকবর তাঁর বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাফল্য ও অর্জনগুলো তুলে ধরেন। তিনি বলেন বাকৃবি জার্মপ্লাজম সেন্টারের মাধ্যমে কৃষি গবেষণায় ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার-১৪১৯’ স্বর্ণপদক লাভ করে এবং ২০১৭ সালে ওয়েব মেট্রিক্স র‌্যাংকিং অভ দ্যা ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটিসে বাংলাদেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে স্থান পেয়েছে বাংলাদেশ কৃশি বিশ্ববিদ্যালয়। মাননীয় ধর্ম মন্ত্রী আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান মুক্তিযদ্ধের স্মৃতি চারণ করে শহীদদের স্মরণে ২টি ছাত্র-ছাত্রী হল প্রথিষ্ঠার দাবী জানান। প্রধাণ অতিথি মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী জনাব নুরুল ইসলাস নাহিদ এমপি কৃষিতে বঙ্গবন্ধুর অবদানের কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশের কৃষির একজন সফল রূপকার এবং তাঁর কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষির সেই ধারাবহিকতার সুযোগ্য উত্তরসূরী। তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি সফল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, নানা প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও মনুষ্য সৃষ্ট দারিদ্রতাকে জয় করে বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং বিশ্বের একটি মডেল রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। এই সাফল্য বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় তথা কৃষি বিজ্ঞানীদের অবদান।

 

অনুষ্ঠান শেষে কৃষকদের মাঝে শস্য বীজ বিতরণ করা হয়। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কৃষি অনুষদ করিডোরে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক উদ্ভাবিত প্রযুক্তি প্রদর্শণ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মেলায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদ, বাউরেস, বাউএক ও কুষি তথ্য সার্ভিস, বাকৃবি শাখা অংশগ্রহণ করে।


     

 


Share with :
Facebook Facebook